টাইমস বাংলা নিউজ ডেস্ক :-

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় তুচ্ছ ঘটনার জেরে হাফিজিয়া মাদরাসার দুই ছাত্রকে বেধড়ক পিটুনির অভিযোগ উঠেছে এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। ওই দুই ছাত্রকে শিক্ষকের পানির জগ ব্যবহার করার অপরাধে এমন পিটুনি দেওয়া হয় বলে শিক্ষার্থীরা জানায়। এ ঘটনায় হাফেজ মোস্তাকিন বিল্যাহ (৩০) নামে এক শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার (১৪ মার্চ) দুপুরে ওই শিক্ষককে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। হাফেজ মোস্তাকিন বিল্যাহ উপজেলার উত্তর বিরাবাড়ি এলাকার শাহ আলম মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, উপজেলার ইয়াহিয়া উলুম হাফিজিয়া মাদরাসায় থেকে মাসুদ রানা (১৩) ও শামীম মিয়া (১৪) নামে দুই ছাত্র পড়াশোনা করে আসছে।
শনিবার (১৩ মার্চ) দুপুরে শিক্ষকের ব্যক্তিগত পানির জগ অনুমতি না নিয়ে ব্যবহার করেন ওই দুই ছাত্র। এ কারণে তাদের লাঠি দিয়ে বেদম মারধর করেন শিক্ষক মোস্তাকিন বিল্লাহ। পরে রাতে অন্য ছাত্ররা বিষয়টি পরিবারের লোকজন ও স্থানীয় থানায় জানায়।

এ ঘটনায় সকালে এক ছাত্রের বাবা আব্দুল মালেক বাদী হয়ে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পরে মাদরাসা থেকে শিক্ষক মোস্তাকিন বিল্লাহকে আটক করে গঙ্গাচড়া থানা পুলিশ।

গঙ্গাচড়া মডেল থানার ওসি সুশান্ত কুমার সরকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ভুক্তভোগী এক ছাত্রের বাবা বাদী হয়ে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে শিক্ষককে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 

 

টিবিএন/ আইএইচএস/ বার্তা২৪