বিশেষ প্রতিনিধি  :-
কক্সবাজারের চকরিয়ার বরইতলীতে মাত্র এক হাজার টাকা ঋণ শোধ করতে না পারায় এক গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতন করেছেন শওকত আলম নামে এক যুবক। নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূর নাম নুর আয়েশা। তিনি বরইতলীর ৮ নং ওয়ার্ডের মোড়াপাড়া এলাকার আলী আহমেদের স্ত্রী।
মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) বিকেল তিনটার দিকে বরইতলীর মোড়াপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি বুধবার বিকেলে নিশ্চিত করেছেন চকরিয়া থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রায় ছয় মাস আগে নুর আয়েশা একই এলাকার জহির আলমের ছেলে শওকতের কাছ থেকে সুদের ওপর পাঁচ হাজার টাকা ঋণ নেন। এর মধ্যে চার হাজার টাকা পরিশোধ করেছেন। বাকি এক হাজার টাকা দিতে পারেননি। ওই টাকার জন্য মঙ্গলবার বিকেলে নারীকে গাছে বেঁধে নির্যাতন করেন শওকত।
এরই মধ্যে ওই নারীকে নির্যাতনের ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।
বরইতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জালাল আহমেদ জানান, ঘটনার পরে এ বিষয়ে খোঁজ-খবর রেখেছি। এক হাজার টাকা দিতে না পারায় ওই নারীকে নির্যাতন করেছেন প্রতিবেশী শওকত। ঘটনার পর পরই তিনি এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছেন। খবর পেয়ে ওই নারীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ।

চকরিয়া থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, ‘ঘটনার পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তদন্ত করেছেন। ওই নারীকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। শওকতকে ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’

 

টিবিএন/ আইএইচএস