দিনাজপুরে আক্রান্তদের চিকিৎসা দিতে গিয়ে নিজেরাই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া দুই নার্সের পরিবারকে ৭৫ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর করা হয়েছে।

জাতীয় সংসদ কার্যালয়ে দিনাজপুর-৩ (সদর) আসনের এমপি ও জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম ৪ মে বেলা ১১টায় এই চেক হস্তান্তর করেন।

চিকিৎসাসেবা দিতে গিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়ে গত বছরের ২ নভেম্বর নার্সিং ইনস্ট্রাক্টর রহিমা খাতুন ও ১২ নভেম্বর নার্সিং ইনস্ট্রাক্টর আমিনা খাতুন এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

প্রণোদনার চেকগুলো গ্রহণ করেন রহিমা খাতুনের স্বামী শাহাদাত হুসেন ও আমিনা খাতুনের স্বামী জাহাঙ্গীর আলম।

দুই পরিবারকে ৩৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা করে মোট ৭৫ লাখ টাকার চেক দেয়া হয়।

জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম বলেন, ‘বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের সেবা করতে গিয়ে যারা নিজেরাই আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন, জাতি তাদের কখনো ভুলবে না।

‘এই করোনা যোদ্ধাদের পরিবারের কথা চিন্তা করে জননেত্রী শেখ হাসিনা যে প্রণোদনা ঘোষণা দিয়েছিলেন তা পর্যায়ক্রমে প্রত্যেক সেক্টরে বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অধীনে এই দুই নার্সিং ইনস্ট্রাক্টরের পরিবারকে ক্ষতিপূরণের চেক দেয়া হয়েছে।’