নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমানের ওপর হামলার রেশ ধরে ফেনীর দাগনভূঁইয়ার দুধমুখায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। শনিবার (১২ জুন) দুধমুখা বাজারে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা রাস্তায় ব্যারিকেড দিয়ে অবস্থান নেন। এসময় তাদের বাদলের পক্ষে স্লোগান দিতে শোনা যায়। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলে কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরিত হয়।

 

পরে বিকেল পাঁচটার দিকে অকুস্থলে পুলিশ ও অন্যান্য আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা পৌঁছায়। তারা ব্যারিকেড সরিয়ে দেন। এখন পর্যন্ত এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। র‍্যাব ও পুলিশের গাড়িকে এলাকায় টহল দিতে দেখা গেছে।

এর আগে, সকালে কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট বাজারের ইসলামী ব্যাংকের সামনে মিজানুর রহমান বাদলের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। এর প্রতিবাদে উপজেলা আওয়ামী লীগ সমর্থিত বাদলের অনুসারীরা দুপুরে বিক্ষোভ মিছিল করেন।

এ সময় চরকাঁকড়া টেকের বাজারে পুলিশের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়। এ সময় পুলিশ গুলি চালালে ছয়জন গুলিবিদ্ধ হন। গুলিতে গুরুতর আহত চয়নকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।