রাজশাহী (জেলা) প্রতিনিধি :- 

 

রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার আগামী মাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পরিবর্তনের অঙ্গীকার নিয়ে নৌকার মাঝি হতে চান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্যাগী সদস্য ও ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তরুণ উদীয়মান নেতা সাখাওয়াত হোসেন লায়ন।

নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে এলাকাবাসীর মধ্যে ঐক্য আরও সুদৃঢ় হচ্ছে বলে জানা গেছে। তৃণমূলের নেতা লায়ন কে চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত করার জন্য চলছে গণসংযোগ। ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের সব শ্রেণী পেশার মানুষেরা একতাবদ্ধ হয়ে চালিয়ে যাচ্ছেন মতবিনিময় সভা। এছাড়া স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরাও তার পক্ষে মাঠে কাজ করছেন।

জানা যায়, লায়ন সুদীর্ঘ রাজনীতির জীবনে আওয়ামী লীগের জন্য ছিলেন নিবেদিত প্রাণ, বহু ত্যাগের মধ্যেই ধরে রেখেছেন তৃণমূলের নেতৃত্ব, সুশৃংখল আওয়ামী লীগ গড়ার অন্যতম কারিগর বলা যায় তরুণ উদিয়মান এই নেতাকে। আওয়ামী লীগ করার কারণে বহু নির্যাতন তাকে সইতে হয়েছে। ২০০১ সালে জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের পক্ষে কাজ করায়, তৎকালীন বিএনপি, জামাত ক্যাডাররা তার উপর বর্বোরোচিত হামলা চালায় এসময় তিনি মারাত্মক আহত হন বিধস্ত করা হয় তাদের ঘরবাড়ি পালিয়ে জীবন বাঁচান তরুণ এই নেতা।

তাঁর সম্পর্কে জানতে চাইলে স্থানীয় জনসাধারণের পক্ষ থেকে শরিফুল ইসলাম জানান, “লায়ন উচ্চ শিক্ষিত অত্যন্ত ভালো ছেলে, সুখে দুঃখে সকলের পাশে দাঁড়ায়। করোনাকালীন সময়ে সবাই যখন মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলো লায়ন তখন দলমত নির্বিশেষে সকলকে সহযোগিতা করে গেছেন নিজ উদ্যোগে। আমার মনে হয় মানবিক মানুষ হিসেবে তাঁকে মনোনয়ন দেওয়া উচিৎ।”

জনৈক ব্যাক্তি মোহাম্মদ ইউসুফ আলী বলেন, “এবারে প্রচন্ড শীতে পাতলা একটি চাদর নিয়ে বেশ কষ্টে ছিলাম, একদিন পথে লায়নের সাথে দেখা, পড়নে সেই চাদরটি দেখে লায়ন ডেকে বললো – চাচা শুধু চাদর পড়ে আছেন ঠান্ডা লাগেনা? কিছু বলার উত্তর ছিলো না। ও আমার পকেটে ২ হাজার টাকা ঢুকিয়ে দিলো বললো চাচা শীতের পোশাক কিনে নিয়েন। তার মতো মানবিক মানুষ হাজারে ১ টা। মানবিক মানুষই নেতৃত্ব দেওয়ার উপযোগী, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ তাঁকে নৌকার মনোনয়ন দেওয়া হোক।”

সংবাদ মাধ্যম কর্মীদের সাখাওয়াত হোসেন লায়ন জানান, “বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আমার প্রাণ, মুজিব আদর্শ বুকে লালন করে দলের সুখে দুঃখে সবসময় পাশে থেকেছি। ৩২ বছর মাড়িয়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ পরিবার গুলো অবহিত নিপীড়িত । বার বার বিদ্রোহী প্রার্থীর কারণে প্রতিবার নির্বাচনে পরাজয় ঘটে। আমি আশাবাদী নৌকার মনোনয়ন পেলে নৌকার বিজয় উপহার দিবো ইনশাআল্লাহ। তবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমার আকুল অবেদন এবারের ইউপি নির্বাচনে একজন সৎ যোগ্য পার্থী কে মনোনয়ন দেওয়া হোক।

 

টিবিএন/ আইএইচএস