ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ- 

 

সিএনএন বাংলা টিভি স্টাফ রিপোর্টার ঠাকুরগাঁও ও দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার পীরগঞ্জ প্রতিনিধি মোঃ আব্দুল আলিম কে এলাকার দস্যু মোঃ হামিদুল ইসলাম ও তার মনোনীত ৫/৬ জন ব্যক্তি হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট করিয়া গত ১৫ এপ্রিল গুরুতর জখম করার ঘটনা ঘটেছে।

জানা যায় পশ্চিম মল্লিকপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এলাকার মৃত দারুল ইসলাম দৌলত এর সন্ত্রাসী পুত্র মোঃ হামিদুল ইসলাম সাংবাদিক আব্দুল আলিম এর বড় ভাই ফরিদুল ইসলাম এর বলাইহাট নামক স্থানে মুদিখানা দোকান থেকে বিভিন্ন সময়ে খাদ্য পণ্য ক্রয় করে ২৭,১৭৬/- টাকা বকেয়া করেন। বকেয়া টাকা পরিশোধ না করায় গত ১০/০৪/২০২১ ইং তারিখ সকাল ৯ ঘটিকায় আব্দুল আলিম হামিদুল ইসলামের কাছে বলাইহাট বাজারে দোকানের বকেয়া টাকা পরিশোধ করার জন্য অনুরোধ করেন।

গত ১৫ই এপ্রিল বিকেল ৫.০০ ঘটিকায় সাংবাদিক আব্দুল আলিম ও তার বাবা আব্দুল মোতালেব বকেয়া টাকা চাওয়ার জন্যে হামিদুল ইসলামের বাড়িতে যায়। ওই সময় হামিদুল ইসলাম আব্দুল আলিম ও তার পিতা কে দেখে তাদের প্রতি প্রচন্ড ক্ষিপ্ত হয়। আব্দুল আলিম প্রতিবাদ করিলে, হামিদুল ইসলাম ইচ্ছাকৃত ভাবে আব্দুল আলিমের বুকের উপর পা দিয়া জোরে লাথি মারিয়া তাকে আহত করেন।

এছাড়া ঐ সময় হামিদুল ইসলাম ইত্তেজিত হইয়া তার বাড়িতে আব্দুল আলিমকে বলেন যে, আমি কোন টাকা পয়সা দিব না। বাড়াবাড়ি করিলে, তোমার কাছ থেকে আরো অনেক টাকা আদায় করিব। কি ভাবে আদায় করিতে হয় তা আমার ভালো জানা আছে বলিয়া হুমকি দেয়।

ঐ দিন রাত ৭টায় আব্দুল আলিম সাংবাদিকতার কাজে নিজ বাড়ি হইতে রওনা দিয়া পীরগঞ্জে আসার পথে ৭.১৫ ঘটিকায় নসিবগঞ্জ রোড পিএস উচ্চ বিদ্যালয়ের দক্ষিণে পাকা সড়ক হইতে পূর্বে নির্জন কাচা রাস্তার উপর পৌছা মাত্রই পূর্বের আক্রোশ বাস্তবায়ন করার উদ্দেশ্যে হামিদুল ইসলাম ও তার মনোনীত ৫/৬ জন সন্ত্রাসী আব্দুল আলিমের পথ গতিরোধ করে। মারাত্বক অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হইয়া হাতে লোহার রড ও ধারালো রাম দা লইয়া তাকে আটক করিয়া হামিদুল ইসলাম নিজে ও তার হুকুমে অজ্ঞাত নামা সকল আসামীরা তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে লোহার রড দ্বারা মাথার হেলমেটের উপর ও শরীরের দুই কাধে ও শরীরের পিছনে বিভিন্ন জায়গায় মারপিট করিয়া গুরুতর আহত করিয়া মেরে ফেলার চেষ্টা করে।

ঐ সময় পূর্বের পাওনাকৃত টাকা বে-দখল দেওয়া ও আব্দুল আলিমের কাছ থেকে ভবিষ্যতে আরো অনেক টাকা আদায় করার জন্যে ধারালো অস্ত্রের মুখে জিম্মি করিয়া ও মৃত্যুর ভয় দেখাইয়া ১০০/- টাকা মূল্যের ৩ খানা নন জুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে হামিদুল ইসলাম জোর পূর্ব আব্দুল আলিমের কাছে স্বাক্ষর নেয়।

আব্দুল আলিমের স্বাক্ষরিত ফাঁকা স্ট্যাম্পগুলি ভবিষ্যতে হামিদুল ইসলাম মূল্যবান সম্পদে পরিণত করতে পারে বলিয়া আব্দুল আলিমের পরিবার ধারনা করছেন। এ ব্যাপারে আব্দুল আলিম বাদী হয়ে হামিদুল ইসলাম সহ অজ্ঞাত নামা ৫/৬ জনের বিরুদ্ধে গত ১৮ এপ্রিল ২০২১ ইং তারিখে পীরগঞ্জ থানায় ১৮৬০ সনের দন্ডবিধি আইনের ১৪৩/৩৪১/৩২৩/৩২৫/৩০৭/৩৮৬/৫০৬/১১৪ ধারায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ১২।

ঘটনার দিন আব্দুল আলিম মুমুর্ষ অবস্থায় পীরগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়। থানার ওসি প্রদীপ কুমার রায় ও সঙ্গীয় ফোর্স আব্দুল আলিমকে পীরগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার খোজ খবর নেন। ঘটনার সত্যতা পেয়ে তিনি দ্রুত আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করেন।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সাব ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) মোঃ আবু তালেব আকন্দ জানান আসামী গ্রেফতারের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে এবং মামলাটি নিরপেক্ষ তদন্ত চলছে।