শহর প্রতিনিধি :- 

 

ঢাকা, চট্টগ্রাম ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নেতা-কর্মী, প্রতিবাদী মুসল্লিদের হত্যা ও হামলার প্রতিবাদে সারা দেশের ন্যায় ফেনীতেও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। শনিবার (২৭ মার্চ) বিকালে জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কয়েক হাজার মানুষ বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে অংশগ্রহন করেন।

ফেনী বড় মসজিদ প্রাঙ্গণ থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে ট্রাংক রোড়, দোয়েল চত্তর প্রদক্ষিণ করে পুনরায় বড় মসজিদ প্রাঙ্গণ এসে শেষ হয়। সমাবেশ শেষ সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন হেফাজত ইসলাম ফেনী জেলা নেতৃবৃন্দ। হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ ফেনী জেলার সহ সভাপতি মাওলানা হোসাইন আহম্মেদের সভাপতিত্বে কর্মসূচীতে উপস্থিত ছিলেন হেফাজতে ইসলাম ফেনী জেলার বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা ও সাধারন মুসল্লিরা।

ফেনীতে হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ মিছিল (ছবিঃ- সংগৃহীত)

কর্মসূচীতে হেফাজতের নেতাকর্মীরা শুক্রবারে ঢাকা সহ বিভিন্ন জেলায় হেফাজতের আন্দোলনে পুলিশ ও সরকার দলীয়দের হামলার তীব্র জানান। আন্দোলনে হামলার প্রতিবাদস্বরূপ কেন্দ্রিয় কর্মসূচী অংশ হিসেবে রবিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতালের সর্মথনে তারা এ মিছিল ও সমাবেশ করেন। কর্মসূচি থেকে সকলকে শান্তিপূর্ণ ভাবে হরতাল পালনের আহবান করেন।

মিছিল পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে নেতাকর্মীরা নরেন্দ্র মোদীর আগমনের বিরোধীতা করে বলেন, যে দেশে মুসলমানদের উপর নির্যাতন চলছে, যে দেশের শাসক মুসলমানদের নির্বিচারে হত্যা করছে সে দেশের শাসক কখনোই বাংলাদেশের মাটিতে আসতে পারবেনা। বাংলাদেশের মাটিতে কোনো নাস্তিক, জালিম শাসকের ঠাই নেই। এক মুসলমান হয়ে কিভাবে অন্য মুসলমাল ভাইয়ের বুকে গুলি চালায় আমরা তার জবাব চাই।

রবিবারের হরতালে কোনো প্রকার বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করবে না হেফাজত। শান্তিপূর্ণ ভাবে কর্মসূচী পালন করা হবে। হরতালে বাধা দিলে,হেফাজতের আন্দোলনে বাধা দিলে লাগাতার কঠোর কর্মসূচীর হুশিয়ারি দেন তারা। এছাড়াও মোদীর আগমনের বিরুদ্ধে হেফাজতের আন্দোলনে হামলাকারীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানান বক্তারা।

 

টিবিএন/ আইএইচএস