ছাগলনাইয়া প্রতিনিধিঃ-

 

ফেনী ছাগলনাইয়া উপজেলা কমপ্লেক্সে কয়েকজন মেয়ে ডাক্তার দেখাতে গেলে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা গিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে ধাক্কাধাক্কি করতে থাকে। কয়েকজন রোগী এ ঘটনার ভিডিও মোবাইল ফোনে ধারণ করতে থাকলে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা তা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে।

এ সময় বাধা দেয় সিনিয়র নার্স ফারজানার ছেলে নাহিদ কোরেশী সিয়াম ও তার চাচাতো ভাই জোবায়ের হোসেন। এতে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা তাদের বেধড়ক মারধর করে পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে ফারজানা বাদী হয়ে আবু তাহেরের ছেলে নয়ন, বেলাল হোসেনের ছেলে শাকিল, রকি, সাহেদ ও আরাফাতকে আসামি করে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।

নার্স ফারজানা জানান, তার ভাসুরের ছেলে অসুস্থ হওয়ায় হাসপাতালে তার ছেলেকে নিয়ে রক্ত পরীক্ষা করাতে আসেন। বখাটে কিশোরদের অন্যায় করতে দেখে তাদের সন্তানরা প্রতিবাদ করলে বখাটেরা তাদের ওপর হামলা করে।

শাকিল দাবি করেন, নার্সের ছেলে সিয়াম ও জোবায়ের ফ্লোরে পড়ে গিয়ে আহত হয়। অহেতুক তাদের ওপর দোষ চাপাচ্ছে তারা।

থানার এসআই মনির হোসেন জানান, হাসপাতালে হামলার ঘটনা জানতে পেরে তারা গেলে বখাটেরা পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা শিহাব উদ্দিন বলেন, একদল কিশোর গ্যাং হাসপাতালে এসে সিনিয়র নার্সের ছেলেকে বেধড়ক পেটানো অন্যায়। তিনি তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।