দাগনভূঞা প্রতিনিধিঃ- 

 

ফেনীর দাগনভূঞায় (১১) বছর বয়সী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৫ম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে রমজান আলী শাহিন (৩৩) নামের এক স্কুল শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার (২২ মে) রাতে কিশোরীর মা বাদী হয়ে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

 

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত আসামি উপজেলার জয়লস্কর ইউনিয়নের বারাহি গোবিন্দ গ্রামের ওয়াহেদ মিঝি বাড়ির হারিছ আহমদের ছেলে। ভুক্তভোগির সম্পর্কে চাচা হয় ওই শিক্ষক।আটককৃত বখাটে শিক্ষক উত্তর বারাহিগোবিন্দ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক।

 

ভুক্তভোগীর মা জানান, আমার মেয়েকে দুই দুইবার দর্শন করে বখাটে । গত ২৩ আগষ্ট দুপুরে বখাটে তার বসত বাড়ির পাশের বাগানের ভিতরে নিয়ে ধর্ষণ করে । ধর্ষণ শেষে কাউকে কিছু বললে স্কুলে গেলে মারধর করবে মর্মে ভয়-ভীতি দেখায়।

গত ২২ই মে সন্ধ্যায় আমার মেয়ে বখাটের ঘরে গেলে একা পেয়ে আবারও ধর্ষণ চেষ্টা করে।ধর্ষণের শিকার কিশোরী একই স্কুলের ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

দাগনভূঞা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ ইমতিয়াজ আহমেদ জানান, এ ঘটনায় ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। অভিযোগ পাওয়ার পরপরই আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। ধর্ষণের শিকার কিশোরীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ফেনী সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।