জমি নিয়ে বিরোধের জেরে ফেনীতে অবসরপ্রাপ্ত এক পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে স্কুলছাত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) ওই ছাত্রীর বোন বিবি হাজেরা বাদি হয়ে সোনাগাজী মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

এতে অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য আব্দুল হক খোকন, হোসেন আহম্মদ, খুরশিদ আলম, ওজিবা খাতুন ও হাসিনা বেগমকে আসামি করা হয়েছে। এর আগে সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের সুজাপুর গ্রামের ফরাজি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্তরা সবাই একই বাড়ির বাসিন্দা। আহত স্কুলছাত্রী সোনাগাজী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন স্কুলছাত্রী বলেন, আব্দুল হকদের সঙ্গে আমাদের জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এর জের ধরে তারা বিভিন্ন সময় দেখা হলেই আমাকে গালাগাল ও মোবাইল ফোনে কুরুচিপূর্ণ আচরণ করত। বিষয়টি স্থানীয় সুশীলদের জানানো হয়। সোমবার সন্ধ্যায় ইফতার শেষে নিজেদের বসতঘরে বসেছিলাম। এ সময় কোনো ধরনের উসকানি ছাড়াই ‘কেন বিচার দিয়েছি’ বলে আব্দুল হক খোকন ঘরে প্রবেশ করে আমাকে টেনেহিঁচড়ে ঘরের বাইরে নিয়ে যায়। তিনি আমার শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগানোর চেষ্টা করেন। তার সঙ্গে থাকা অন্যরা আমাকে কিল-ঘুসি মেরে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করেন। পরে চিৎকারে বাড়ির লোকজন এগিয়ে এলে তারা সটকে পড়েন।

অভিযোগের বিষয়ে আব্দুল হকের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। সোনাগাজী মডেল থানার এসআই আনোয়ার হোসেন বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। পারিবারিক বিরোধের জেরে ঘটনাটি ঘটেছে।