ফেনীর সোনাগাজীতে ‘আমড়া গাছে ওঠায়’ সাত বছরের শিশুকে জুতাপেটাসহ বেদম মারধরের অভিযোগে এক মসজিদের মুয়াজ্জিনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার ২৮ এপ্রিল দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। আগে রাতে বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার গুরা মিয়া (৭৮) ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার চর চান্দিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পাড়ার বাসিন্দা এবং স্থানীয় এক মসজিদের মুয়াজ্জিন।

মামলার বরাত দিয়ে সোনাগাজী মডেল থানার ওসিসাজেদুল ইসলাম জানান, চেয়ারম্যান পাড়ায় গত সোমবার বিকেলে আমড়া পাড়তে গুরা মিয়ার গাছে ওঠে ওই এলাকার এক শিশু।

“গাছে ওঠার অপরাধে গুরা মিয়া শিশুটিকে গাছ থেকে নামিয়ে জুতাপেটা করেন এবং পদদলিত করে আহত করেন।”

আহত অবস্থায় শিশুটি বাড়ি ফিরে তার মা-বাবাকে ঘটনা জানালে তারা তাকে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন।

এদিকে সাত বছর বয়সী শিশুটিকে জুতা পেটা ও পদদলিত করার ভিডিও ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়।

ওসি সাজেদুল আরও জানান, ওই ঘটনায় শিশুটির বাবা জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে গুরা মিয়াকে আসামি করে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় থানায় একটি মামলা করেন।

রাতেই পুলিশ তাকে বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে বুধবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।