নিজস্ব প্রতিনিধিঃ- 

ইউনিট আইডির জন্য রক্তের গ্রুপ প্রয়োজন, এমন সংবাদে অভিভাবকবৃন্দ চিন্তিত হয়ে পড়েন। ছাগলনাইয়া পাইলট বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের ও অভিভাবকদের জন্য এই ব্লাড গ্রুপ নির্ণয় করা অনেক কষ্টকর হয়ে পড়লে বঙ্গবন্ধু ব্লাড ব্যাংক ছাগলনাইয়া’র সদস্যরা নিজ দায়িত্বে বিদ্যালয়ে গিয়ে ছাত্রীদের এই ব্লাড গ্রুপ নির্ণয় করে দেন।

২৪ ও ২৫ মে টানা ২দিন ব্যাপী ছাগলনাইয়া পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ক্লাশ রুমে বসে এই ক্যাম্পেইন বাস্তবায়ন করা হয়।

উক্ত ক্যাম্পেইনে কোন ৪৫০জন ছাত্রীদের রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করা হয়।

ক্যাম্পেইনের নেতৃত্বে দেন বঙ্গবন্ধু ব্লাড ব্যাংক ছাগলনাইয়া’র সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা যুবলীগের সহ-সম্পাদক, ছাগলনাইয়া প্রেস ক্লাবের দপ্তর সম্পাদক সাংবাদিক মোঃ এনায়েত উল্যাহ সোহেল।

ক্যাম্পেইনে উপস্থিত ছিলেন, ছাগলনাইয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম আফসার, আইসিটি শিক্ষক আতিক উল্যাহ, বঙ্গবন্ধু ব্লাড ব্যাংক ছাগলনাইয়া’র সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন ভূঁঞা, রাধানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক আশিক চৌধুরী সানি, পাঠাননগর শাখার সাধারণ সম্পাদক কাজী রানা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরমান হোসেন, সংগঠনের সদস্য সাবরিনা আক্তার আঁখি, সোনিয়া আক্তার, চাদনি, ওমর ফারুক ইমন, রাকিব প্রমুখ।

এ সময় সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক মোঃ এনায়েত উল্যাহ সোহেল বলেন, ছাগলনাইয়া পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জনাব মোঃ গোলাম আফসার যখন আমাকে কল দিয়ে জানান যে, আমাদের ছাত্রীদের রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করতে হবে, ওরা হাসপতালে গিয়ে নির্ণয় করতে গেলে হয়রানী স্বীকার হতে পারে। তখন আমি বঙ্গবন্ধু ব্লাড ব্যাংক ছাগলনাইয়া’র উদ্যোগে ও নিউ মডার্ণ ডিজিটাল ল্যাব’র সহযোগীতা ২৪ ও ২৫ মে টানা দুই দিন ক্যাম্পেইন করে অত্র বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করে দিয়েছি। বঙ্গবন্ধু ব্লাড ব্যাংক ছাগলনাইয়া’র সদস্যরা সবসময়ে সেবামূলক কাজে নিয়োজিত থাকে। আগামীতেও এই রকম সেবামূলক কাজে আমাদের অংশগ্রহণ থাকবে শতভাগ। আপনারা আমাদের জন্য দোয়া করবেন।