টাইমস বাংলা নিউজ ডেস্ক:-

আগামী ২০ মার্চ থেকে মাঠের লড়াইয়ে উপনীত হবে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট। তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলবে দুই দল। ওয়ানডে দিয়ে শুরু হবে খেলা।

এই ওয়ানডে সিরিজ শুরুর আগেই বড় ধাক্কা খেল স্বাগতিক কিউইরা। পঞ্চাশ ওভারের ক্রিকেটের সিরিজটিতে খেলতে পারবেন না নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন।

কনুইয়ের ইনজুরির কারণে ওয়ানডে সিরিজ থেকে ছিটকে গেছেন কিউই অধিনায়ক। বাম কনুইয়ের টেন্ডনে ছোট একটি চিড় ধরা পড়েছে উইলিয়ামসনের। যা তাকে গত কয়েকদিন ধরেই বেশ ভোগাচ্ছে।

সেই ইনজুরির কারণে ওয়ানডে সিরিজ থেকে ছিটকে গেছেন আর টি-টোয়েন্টি সিরিজে তার খেলার সম্ভাবনা আগেই ছিল কম। আগামী মাসে শুরু হতে যাওয়া আইপিএলের প্রথম থেকেই অংশ নিতে পারেন উইলিয়ামসন। যে কারণে বাংলাদেশের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও তাকে পাওয়ার সম্ভাবনাক কম।

তবে নিউজিল্যান্ড কোচ গ্যারি স্টিড আশা করছেন, ওয়ানডেতে না হলেও টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলবেন উইলিয়ামসন। কিউই কোচের ভাষ্য, ‘উইলিয়ামসন দেশের জন্য খেলতে ভালোবাসে। তাই তার জন্য সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত সহজ ছিল না।

তিনি আরও যোগ করেন, ‘যেকোনো ব্যাটসম্যানের সামনের কনুই ব্যাটিংয়ের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। যেহেতু ইনজুরিটা সারছিল না, তাই কিছু একটা করার প্রয়োজন ছিল। চলতি বছর কী পরিমাণ ব্যাটিং করেছে উইলিয়ামসন, দেখুন। হয়তো এ কারণেই ইনজুরির ঝুঁকিটা বেড়েছে।

উইলিয়ামসন খেলতে না পারলেও, তার জায়গায় যাকে নেয়া হবে সেটি ওই খেলোয়াড়ের জন্য বড় সুযোগ হয়ে আসবে বলে মনে করেন কিউই কোচ। এছাড়া সামনের দিনগুলোতে অনেক বেশি খেলা থাকায় অধিনায়ককে পুরোপুরি ফিট অবস্থায়ই দলে চান স্টিড।

সম্পূর্ণ বিশ্রামের পর ব্যাট হাতে ফিরতে প্রায় ১০-১২ দিন লেগে যাবে উইলিয়ামসনের। তার জায়গায় সুযোগ পেতে পারেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ডেভন কনওয়ে। আর অধিনায়কত্বের ভার পড়তে পারে টম লাথামের কাঁধে। আগামী বৃহস্পতিবার ওয়ানডে সিরিজের স্কোয়াড ঘোষণা করবে নিউজিল্যান্ড।

 

টিবিএন/সাব্বির/সিপি/জাগো