নিউজ ডেস্কঃ- 

 

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া জন্মদিন নিয়ে বিভ্রান্তি দীর্ঘদিনের। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মম হত্যাকান্ডের দিন ১৫ আগস্ট জন্মদিন পালন করে সমালোচিত তিনি। বিভ্রান্তি আর সমালোচনার মধ্যে যোগ হয়েছে আরেকটি জন্মদিন, ৮ মে।

 

এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, “অবশেষে খালেদা জিয়ার আসল জন্মদিনের তথ্য প্রকাশিত হয়েছে।” তবে এ বিষয়ে বক্তব্য দিতে চাননি বিএনপির শীর্ষ নেতারা।

১৫ আগষ্ট জাতির পিতার হত্যাকান্ডের দিন খালেদা জিয়া ঘটা করে জন্মদিন পালন করে আসছিলেন। এ নিয়ে সমালোচিত তিনি।

বেগম খালেদা জিয়ার এসএসসি পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন অনুযায়ী জন্ম তারিখ ৫ সেপ্টেম্বর ১৯৪৬। ১৯৯১ সালে বেগম জিয়া প্রধানমন্ত্রী হবার পর তৎকালীন সরকারি পত্রিকা দৈনিক বাংলাতে তাঁর জীবনী প্রকাশিত হয়েছিল। সেখানে লেখা ছিল জন্মদিন ১৯ আগস্ট ১৯৪৫। কাবিন নামায় ১ বছর বাড়িয়ে লেখা আছে ৪ আগস্ট ১৯৪৪। এদিকে মেশিন রিডেবল পাসপোর্টে আবার দুই বছর কমিয়ে জন্মদিন উল্লেখ করা হয়েছে ৫ আগষ্ট ১৯৪৬।

 

তবে এ বিষয়ে এখনো পর্যন্ত বিএনপির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সাথে মিডিয়া যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে, তার ফোন বন্ধ থাকায় যোগাযোগ সম্ভব হয়নি।