রাজশাহী (জেলা) প্রতিনিধি :-

 

রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের সাবেক এমপি মেরাজ উদ্দিন মোল্লা ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

রোববার রাতে ঢাকায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর।

রোববার রাত ১০টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক প্রদ্যুৎ কুমার সরকার। সোমবার বাদ জোহর নওহাটায় নামাজে যানাজা শেষে তার দাফন সম্পন্ন হবে।

 

তিনি জানান, ঢাকা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার রাত ১০ টার দিকে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাজশাহী-৩ আসনের সাবেক এমপি মেরাজ উদ্দিন মোল্লা ইন্তেকাল করেন।

এদিকে মেরাজ মোল্লার বড় ছেলে জালাল মোল্লা জানান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত পৌনে ১০টায় তিনি মারা গেছেন। তিনি ফুসফুসে পানি জমায় শ্বাসকষ্ট ও নিম্ন রক্তচাপে ভূগছিলেন।
গত ২৮ এপ্রিল মেরাজ উদ্দিন মোল্লার কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়। এরপর তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রথমে একটি কেবিনে এবং পরে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) তার চিকিৎসা চলছিল।

৩ মে (সোমবার) শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে জরুরী ভিত্তিতে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর একটি এমআই-১৭১এসএইচ হেলিকপ্টার যোগে রাজশাহী হতে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়। পরবর্তীতে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
২০১৯ সালের ৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পান দলের প্রবীণ নেতা মেরাজ উদ্দিন মোল্লা। আর সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন কাজী আবদুল ওয়াদুদ দারা। তারা দু’জনেই সাবেক সংসদ সদস্য।

নবম সংসদে রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন মেরাজ। সম্মেলনের মাধ্যমে মেয়াদ শেষ হওয়া কমিটির আগের কমিটিতে সভাপতি ছিলেন মেরাজ উদ্দিন মোল্লা।
এদিকে মেরাজ উদ্দিন মোল্লার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। রোববার রাতে এক শোক বার্তায় এই শোক প্রকাশ করেন মেয়র।

শোক বার্তায় রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং তাঁর শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

একই সাথে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগে তাঁর অবদান শ্রদ্ধার সাথে করেন রাসিক মেয়র।

এছাড়াও তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকসহ রাজশাহীর ছয়টি আসনের সংসদ সদস্যরা।