রাজশাহী প্রতিনিধিঃ- 

 

রাজশাহীর দুর্গাপুরে পারিবারিক কলহের জের ধরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক গৃহবধূ। ওই গৃহবধূর নাম হুসনেআরা খাতুন (২৩) ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলা পালশা গ্রামে।

পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুর্গাপুর উপজেলার ৪ নং দেলুয়াবাড়ী ইউনিয়নে কিশোরপুর পূর্ব পাড়ার আবুল হোসের মেয়ে হুসনেআরা খাতুনের সাথে গত দেড় বছর আগে একই উপজেলার ১ নং নওপাড়া ইউনিয়নের পালশা পশ্চিমপাড়ার আবুল কালামের ছেলে রতেন আলীর সাথে বিয়ে হয়।

সম্পর্কে তারা খালাতো ভাই-বোন ছিলেন। বিয়ের এক বছর যেতে না যেতেই তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ দেখা দেয়।

এক পর্যায়ে হুসনেআরা খাতুন (২৬ মে) বুধবার বিকেল সাড়ে ৫ দিকে সবার অগোচরে ঘরের তীরের সাথে রশি পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

পুলিশ বৃহস্পতিবার ওই গৃহবধূর মরদেহটি উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করেন।

এবিষয়ে দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাশমত আলী জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা যাচ্ছে হুসনেআরা গলায় ফাঁস দিয়েই আত্মহত্যা করেছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে হুসনেআরা মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।