আন্তর্জাতিক ডেস্ক :- 

 

পাকিস্তানের এবোটাবাদ নগরে ওসামা বিন লাদেনের প্রাণহানি’র ১০ বছর আজ। আজ ২ মে  এর একই দিনে ১০ বছর পূর্বে এক সিক্রেট অপারেশনের মাধ্যমে ওসামা বিন লাদেনকে “টার্মিনেট” করর CIA আই.এস.আই তার জন্মলগ্ন হতেই বেশ শক্তিশালী একটি গোয়েন্দা সংস্থা হিসেবে পাকিস্তানের অভ্যন্তরেই গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে আসছে।অসামান্য ফান্ডিং এবং চৌকসতা নির্ভর এ সংস্থাটি প্রত্যক্ষ ভাবে CIA এর মদদপুষ্ট।এমনকি ওসামা বিন লাদেনের সাথে ISI এর সম্পর্ক আছে বলে জানত খোদ CIA তাই ওসামা বিন লাদেনের ব্যপারে ISI থেকে সহায়তা পাওয়া যাবেনা বলে CIA এর তরফ থেকে আগেই অনুমেয় ছিল।

সি.আই.এ স্যাটেলাইট সিস্টেম এবং ড্রোন সিস্টেমের মাধ্যমে সর্বদাই এব্যোটাবাদের সন্দেহজনক সে বাড়িটির উপর নজরদারী রাখত।এমনকি খোদ ISI এর ইন্টালিজেন্স এবং পাকিস্তানী এজেন্টদের সহায়তা নেয় CIA.

শাকিল আফ্রিদি নামক একজন পাকিস্তানি ডাক্তার টিকা দেয়ার মিথ্যের আশ্রয় নিয়ে সর্বপ্রথম বিন লাদেনের অবস্থান পিন পয়েন্ট করেন।

পাকিস্তানের জংগীবাদ সমস্যা মুলেই ছিল ISI কর্তৃক পাকিস্তানের অভ্যন্তরে এবং আফগানিস্তানে জংগীদের প্রশিক্ষণ। তাদের অবস্থান আবার সি.আই.এ জানত এবং একই ভাবে এসব জংগীরাই যে ভারতে হামলা করতে পারে তা নিয়েও অবগত ছিল CIA.

বিন লাদেনের হত্যার খবর বিশ্বব্যাপী প্রচারিত হলে ইমেজ সংকটে পড়ে পাকিস্তান। একই সাথে পাকিস্তানের অভ্যন্তরে পাকিস্তানের অনুমতি না নিয়েই হামলা চালায় আমেরিকা।পাকিস্তানের সার্বভৌমত্ব কে বুড়ো আংগুল দেখালেও বিন লাদেনকে পাকিস্তানের অভ্যন্তরেই পাওয়ার খবরে ISI-CIA সম্পর্ক মুখ থুবড়ে পড়ে।

এর আগে অবশ্য, তালেবান, বিন লাদেন পাকিস্তানে নেই বলেই দাবী কর‍ত পাকিস্তান।

আমেরিকান চাপের কাছে নতিস্বীকার করে নিজেদের গড়ে তোলা মুজাহিদিন দের বিরুদ্ধেই যুদ্ধ ঘোষণা করে পাকিস্তান আর্মি। সে মুজাহিদিন ই আবার পাকিস্তানের সেনাবাহিনী উপর হামলা চালায় এমনকি সেনাসদরে ১৬ ডিসেম্বর ২০১৬ হামলা চালিয়ে সেনাবাহিনী পরিচালিত স্কুলের নিরীহ শিক্ষার্থীদের উপর হামলা চালায় এবং খুন করে।

পাকিস্তান হতে বাংলাদেশ পৃথক হওয়ার পেছনে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর অবদান ছিল। বর্তমান সময়ে পাকিস্তানের করুণ অবস্থার জন্য পাকিস্তান সেনাবাহিনী এবং তাদের ISI এর ভুমিকা সবচাইতে বেশী বলে গণ্য করা হয়।

শাকিল আফ্রিদি কে তালেবান গোষ্ঠীর নেতা ওসামা বিন লাদেনকে পিন পয়েন্ট করবার অপরাধে কারাদণ্ড দেয়া হয়। বর্তমানে তিনি প্রায় ১০ বছর যাবত কারাগারে রয়েছেন।

ওসামা বিন লাদেনের মৃত্যু নিয়ে পাকিস্তানের অভ্যন্তরে এখনো প্রকাশ্যে কথা বলাকে নিরুৎসাহিত করা হয়। অন্যের জন্য গর্ত খুড়তে গিয়ে এখন নিজেই সে গর্তে পাকিস্তানকে ফেলে দিয়েছে ISI মূলকথা পাকিস্তান নিজ ইচ্ছেয় CIA এর খেলার পুতুল হয়েছে যার নেপথ্যের মুল কারিগর ছিল পাকিস্তানের সরকার, সেনাবাহিনী এবং ইন্টার সার্ভিস ইন্টালিজেন্স (ISI)। অন্যদিকে ভারতীয় সংস্থা ‘RaW/র’এর সাথে CIA এর সম্পর্ক বর্তমানে বেশ শক্তিশালী আর তা নিয়েও বর্তমানে বেশ চিন্তিত ISI