সিলেট প্রতিনিধিঃ- 

 

সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নোমান বখত পলিন এর নেতৃত্বে এবং সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান নেতৃবৃন্দের যৌথ উদ্যোগে ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস উপলক্ষে সুনামগঞ্জ পৌর চত্বরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন নেতৃবৃন্দ।

পরবর্তীতে সম্ভাবনা ও সমৃদ্ধির জাতীয় বাজেট ২০২১-২০২২ কে স্বাগত জানিয়ে সুনামগঞ্জ পৌর চত্বর থেকে শুরু হয়ে সুনামগঞ্জ ট্রাফিক পয়েন্ট সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আনন্দ শোভাযাত্রা করা হয়। বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার পৌর চত্বরে এসে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন মূল আয়োজক নোমান বখত পলিন।

সুনামগঞ্জ সরকারী কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি এড. মনীশ কান্তি দে মিন্টুর পরিচালনায় পলিন বখত বলেন, আজ ৭ই জুন ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস। এই ছয়দফা দিবস বাঙালির মুক্তির সনদ। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু বাঙালীকে পশ্চিমা শাসকগোষ্ঠী থেকে মুক্তির জন্য সারাজীবন আন্দোলন সংগ্রাম করে জীবনের দীর্ঘ সময় কারাবন্দী ছিলেন। জাতির পিতার প্রতি জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা।

তিনি বাজেট কে স্বাগত জানিয়ে বলেন, এই করোনা মহামারীতে সারাবিশ্বের অর্থনৈতিক অবস্থা যেখানে স্থবির সেখানে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা জীবন ও জীবিকায় প্রাধান্য দিয়ে সুদৃঢ় আগামীর পথে বাংলাদেশ ২০২১-২০২২ এর জাতীয় বাজেট ৬লাখ ৩হাজার ৬৮১ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব করেছেন।

ইতিহাসের সবচেয়ে বড় বাজেট প্রণয়নের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সুনামগঞ্জ জেলাবাসীর পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি। এই বাজেট গণমুখী বাজেট , এই বাজেট শিক্ষাবান্ধব বাজেট । মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এই বাজেটে বাংলাদেশের সকল উন্নয়নকাজ তরান্বিত হবে। প্রস্তাবিত এই বাজেটকে নিয়ে যদি কেউ কোনো ষড়যন্ত্র করে তাদের বিরুদ্ধে দাতভাঙ্গা জবাব দেয়া হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, সুনামগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট চান মিয়া, বর্তমান সভাপতি অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম শেফু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জিতেন্দ্র তালুকদার পিন্টু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহ আবু তারেক, সুনামগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাড শুকুর আলী,সাবেক ছাত্রলীগনেতা অজয় কান্তি তালুকদার দোলন, সুনামগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি বিকাশ কান্তি দে বাবুল, সুনামগঞ্জ সরকারী কলেজের সাবেক ভিপি ও সুনামগঞ্জ জেলা যুবলীগের সাবেক সদস্য অ্যাড মনীশ কান্তি দে মিন্টু, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য অমল কান্তি চৌধুরী হাবুল, সুনামগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি সুয়েব চৌধুরী, সহ-সভাপতি ঝন্টু তালুকদার, সুনামগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাজিদুর রহমান, সহ-সভাপতি অ্যাড স্বপন রায় সপু, শফিকুল ইসলাম,যুগ্ম সম্পাদক সৈকতুল ইসলাম শওকত, দপ্তর সম্পাদক লিটন সরকার, জেলা যুবলীগের সাবেক সদস্য অ্যাড পঙ্কজ তালুকদার, পৌর যুবলীগের সাবেক আহবায়ক সাজ্জাদ হোসেন নাহিদ, সুনামগঞ্জ জেলা শ্রমিক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাসেল চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক শাহীন মিয়া, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি নিহার তালুকদার, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজহারুল ইসলাম শিপু, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল লেইছ রিজেন, বরুণ কান্তি দে, যুবলীগনেতা শাহীন হোসেন, শুভ বণিক, সবুজ দেবনাথ, সদর উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মিটুন চন্দ, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক তানজিলুর রহমান, সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সাবেক সদস্য আব্দুল কাদের শাওন, সুমিত পুরকায়স্থ রাহুল, শুভ দাস, আবুল খয়ের, আমির বখত মুন্না, সাবেক সদস্য সুজন দেব, সৈকত, মাসুম। সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও আয়ুব বখত জগলুল পুত্র আসেফ বখত রাদ, ইকরাম আলম পীর, সৌরভ, রুহুল, ইফতি বখত, ফাহমিদ চৌধুরী ফামু, সাকিব প্রমুখ।