টাইমস বাংলা নিউজ ডেস্ক :- 

সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন দেশের সংগীতাঙ্গনের দুই পরিচিত মুখ হানিফ আহমেদ (প্যাড ও পার্কাসন বাদক) এবং পার্থ গুহ (প্যাড বাদক)। শনিবার (১৩ মার্চ) ভোর ৫টার দিকে শোয়ের উদ্দেশে কক্সবাজার যাওয়ার পথে চট্টগ্রামের মিরসরাই এলাকায় পৌঁছালে উল্টো দিক থেকে আসা একটি লরি তাদের মাইক্রোবাসটিকে ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় মারাত্মক আহত হন মাইক্রোবাসে থাকা তরুণ গায়িকা বিউটি খানসহ অন্যরা।

দুর্ঘটনার খবরটি নিশ্চিত করেছেন হানিফের বড় ভাই দেশের স্বনামধন্য ড্রাম বাদক মানিক আহমেদ, সংগীতশিল্পী ইমরান ও কি-বোর্ড বাদক আসাদ।

কি-বোর্ড বাদক আসাদ জানান, ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান পার্থ গুহ। দুর্ঘটনায় আহত সবাইকে জরুরি ভিত্তিতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার হানিফকেও মৃত ঘোষণা করেন। গাড়িতে থাকা তরুণ সংগীতশিল্পী বিউটি খান, নন্দন, রাহাত, পাপ্পু এবং তাওহীদও মারাত্মক আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে বিউটি খানের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

তিনি আরও জানান, গতকাল (শুক্রবার) রাতেই চাঁদপুরে একটি শো করে ফিরেছিলেন তারা। সেখানে গান করেছিলেন কনা ও ইমরান। শো শেষে রাত ৩টার দিকে মেঘনা ব্রিজের কাছ থেকে বিদায় নিয়ে অপর একটি মাইক্রোবাসে করে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওনা দেন তারা।

এদিক ইমরান বলেন, ‘চাঁদপুরে আমি আর কনা আপু একই শোতে ছিলাম। কিন্তু সময়ের ব্যবধানের কারণে আমাদের দেখা হয়নি। হানিফ ভাই কনা আপুর সঙ্গে বাজিয়েছিলেন। রাতে ঢাকায় ফেরার পথে মেঘনা ব্রিজের কাছে হানিফ ভাই নেমে পার্থ দাদার সঙ্গে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। এমন মৃত্যু সত্যিই মানা যায় না! আমাদের মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির জন্য অনেক বড় ক্ষতি হয়ে গেল।’

ইমরান আরও যোগ করেন, ২০০৮ সালের সেরাকণ্ঠ প্রতিযোগিতার সময় প্রয়াত এই দুই মিউজিশিয়ানই তার সঙ্গে বাজিয়েছিলেন। দিনগুলোর কথা স্মরণ করে কেঁদে উঠেন এই গায়ক।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) আলাউদ্দিন তালুকদার ঢাকা পোস্টকে বলেন, সকালে ঢাকা থেকে কক্সবাজারগামী একটি হাইসের সঙ্গে লরির সংঘর্ষ হয়। হাইস গাড়িটি ওভারটেক করতে গিয়ে এ সংঘর্ষ হয় বলে জানিয়েছেন তিনি। এতে গুরতর আহত অবস্থায় হানিফ (৪২) নামে একজনকে হাসপাতালে আনার পর ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। আর ঘটনাস্থলে পার্থ নামে একজন মারা গেছেন বলে জানিয়েছেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

হানিফ আহমেদ ও পার্থ গুহ দুজনেরই বাড়ি কুমিল্লায়। দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে দেশের বিভিন্ন প্রজন্মের অসংখ্য শিল্পীর সঙ্গে বাদ্য বাজিয়েছেন তারা। তাদের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে সংগীতাঙ্গনে। প্রতিটি শিল্পী এবং মিউজিয়িশানের ফেসবুক যেন এখন শোক বই।

 

টিবিএন/ আইএইচএস/ ডেস্ক