জহিরুল হক খাঁন সজীব, নিজস্ব প্রতিনিধি <>

আলফা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড এর হাতিয়া অফিসের গ্রাহক মৃত শংকর জল দাসের মৃত্যুজনিত বীমা দাবির চেক হস্তান্তর করেন তার নমীনি বিপুল বালা, জেলে পাড়া, হাতিয়া, নোয়াখালী’র হাতে। শংকর জল দাস আলফা ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্সে মাত্র ১হাজার টাকা করে তিন মাসে তিনটি কিস্তি দিয়ে দূর্ঘটনার স্বীকার হয়ে মৃত্যু বরণ করেন।

৬৭হাজার ৮শ টাকার চেক নাম্বার (সি-২৬৭৩৪৪৩) তারিখ ২৩/০৩/২০২১ইং। পূবালী ব্যাংক লিমিটেড (ইসলামী ব্যাংকিং উইন্ডো) মতিঝিল শাখা। উক্ত চেক প্রধান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলফা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স এর সেলস ম্যানেজার জনাব মোঃ এইচ এম আরিফ হোসাইন। উল্লেখ্য মাত্র তিন দিনের মধ্যে গ্রাহকের নমিনির হাতে মৃত্যু দাবীর চেক প্রদান করা হয়। বীমা জগতে আলফা ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্স আরো একবার প্রমাণ করে দিল যে আলফাই সবার সেরা। মাত্র ৩ দিনে মৃত্যু দাবী পরিষদের মাধ্যমে।

সম্পূর্ণ ডিজিটাল পদ্ধতিতে নগদ লেনদেন ব্যতিত ব্যাংকিং কার্যক্রমের মাধ্যমে দ্রুত গ্রাহক সেবা, কর্মসংস্থানের ব্যবস্থাসহ বীমা যগতের আমূল পরিবর্তন করার লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন বীমা জগতের উজ্বল নক্ষত্র নুরে আলম সিদ্দিকী অভি, এমডি, আলফা ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড।

অতি অল্প সময়ে হাজার-হাজার যুবকের কর্মসংস্থানের মাধ্যমে তাদের ও তাদের পরিবারের আর্থিক নিরাপত্তার ব্যবস্থা করে যাচ্ছেন। হাজারো যুবকের আইডল নুরে আলম সিদ্দিকী অভি আবারো প্রমান করলেন যে কোন কোম্পানি যদি সিস্টেম ডেভেলপ করে তবে আল্প সময়েই বীমা দাবীসহ ম্যাসুরিটি দেওয়া সম্ভব। এতে বীমা নিয়ে মানুষের মাঝে যে হতাশা আর এলার্জি বিরাজমান রয়েছে তা নিমিষেই শেষ করে একটি শক্তিশালী আয়ের ও সঞ্চয়ের খাত এবং আস্থার শেষ আশ্রয়স্থলে রুপান্তরিত হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এইচ এম আরিফ হোসাইন বলেন, আমি আজকে প্রাণ ভরে স্বরণ করছি আলফা লাইফ এর সম্মানিত সিইও জনাব নুরে আলম সিদ্দিকী অভি স্যারকে। তিনি আরো বলেন অভি স্যার একমাত্র ব্যক্তি যিনি টানা ৪৮ ঘণ্টা পর্যন্ত অফিস করেন এবং সর্বদা উনাকে আমরা মোবাইলে পাই। স্যারের দক্ষ নির্দেশনায় আজ আমরা এগিয়ে যাচ্ছি বিদ্যুৎ গতিতে।

স্যারের অধম্য পরিশ্রমের ফলে দিনে-দিনে আলফা ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড ১০০% ডিজিটাল ও বাংলাদেশ জনপ্রিয় কোম্পানী হিসেবে প্রতিষ্টিত হচ্ছে। স্যারের দির্ঘায়ু কামনা করি।