মো: আসাদুজ্জামান, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধিঃ
ঠাকুরগাওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল মিরডাঙ্গী বি,এম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির এক ছাত্রী। মেয়ের বয়স ১৮ বছর না হওয়ার কারণে বিয়ে বন্ধ করেন ইউএনও ।

৯ এপ্রিল শুক্রবার বিকেল ৩ টার দিকে বরযাত্রী আসার আগেই বিয়ের আয়োজন বন্ধ করে দেন উপজেলা নির্বাহি অফিসার সোহেল সুলতান জুলকার নাইন কবির স্টিভ ।

জানা যায় , উপজেলার বাচোর ইউনিয়নের ভাঙ্গবাড়ী গ্রামের এজাবুলের মেয়ের সঙ্গে উপজেলার গোগর গ্রামের আনুমানিক ২২ বছরের এক যুবকের বিয়ের আয়োজন চলছিল।

লকডাউন এবং করোনাকালীন সময়ে সামাজিক দূরত্ব না মেনে আনুষ্ঠানিকতা করায় ইউএনও ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে কনের বাবাকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন । এ সময় উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা আবিদা সুলতানা উপস্থিত ছিলেন।

অপর দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের খবর পেয়ে বরপক্ষ কনের বাড়িতে আসেনি। এদিকে ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত মেয়ের বিয়ে দেবে না মর্মে মেয়ের বাবা লিখিতভাবে অঙ্গীকার করেছেন।