নিজস্ব প্রতিনিধি <> ছাগলনাইয়া উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আসার পর থেকে বিভিন্ন কার্যক্রমের জন্য উপজেলা, জেলা ও সংগঠনের সকলের কাছে প্রশংসা পেয়েছেন দিদার-রুবেল।

 

জিয়াউল হক দিদার ছাগলনাইয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও শওকত হোসেন রুবেল উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বরত।

 

দায়িত্ব পাওয়ার থেকে সংগঠনের শৃংখলা বজায় রাখতে সভাপতি-সম্পাদক’র সকল সিদ্ধান্ত এক ও অভিন্ন। তারা দুই জনই এক সাথ হয়ে দলের কাজ করে যাচ্ছেন। সভাপতি/সম্পাদক দুইজনই ধর্মকর্ম করেন তার জন্যই সকলের নিকট প্রশংসনীয়তা ও গ্রহণ যোগ্যতা পেয়েছেন। তাদের কার্যক্রমে এই পর্যন্ত কেউ কষ্ট পেয়েছেন সেটি নজির নেই এই উপজেলাতে।

 

সাংগঠনিক  যে কোন সিদ্ধান্ত নিতেও একে অন্যকে ছাড় দে। ছাত্রলীগ নেতা সাখাওয়াত হোসেন ভূঁঞা জানান, আমি যখন এই দুই ভাইয়ের সামনে যাই তখনই দেখি উনার পরম আপন ভাষায় আমাদের সাথে কথা বলেন। কখনও খারাপ ভাষায় কথা বলেন না। কোন অপ্রিয় সত্য কথাটাও হাসি মুখে সামনে বলে ফেলেন। আমি কোনদিন সভাপতি/ সম্পাদকের কথাবার্তার মধ্যে হিংসা বিদেষ খুজেঁ পাইনি। তাই এই ভাইয়ের নেতৃত্বে আমরা ছাগলনাইয়া উপজেলা ছাত্রলীগ ঐক্যবদ্ধ। আগামীতেও এমন নেতৃত্ব আসুন এই উপজেলাতে।

 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যবসায়ী টাইমস বাংলা নিউজকে জানান, আমরা পেপার পত্রিকার ইলেক্টিক মিড়িয়ার মাধ্যমে খবর পাই যে, উমুক জায়গায় সভাপতি-সেক্রেটারী গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত-১, আহত-১০। উমুক জায়গা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে জায়গা দখল। উমুক জায়গায় টেন্ডার জমা দিতে গিয়ে ছাত্রলীগের হাতে লাঞ্চীত ঠিকাদার। উমুক জায়গাতে ছাত্রলীগের চাঁদার দাবী উন্নয়ন কাজ বন্ধ হয়ে গেছে। কিন্তু ছাগলনাইয়াতে এই ভালো ছেলের এমন কোন রেকর্ড নেই। তাদের দেখলেই মনটা ভালো হয়ে যায়। দুইজনের মুখে সুন্নতি দাড়ী, নূরানী চেহারা। আমার খুবই ভালো লাগে দুইজনকে। দল ক্ষমতায় থাকা সত্ত্বেও সভাপতি/ সম্পাদক দুইজনই ব্যবসা বাণিজ্য করে দলের ছেলেদের ও পরিবারের খরচ বহন করছে। এদেরকে যারা নেতৃত্ব দিয়েছেন তাদেরকে উপজেলাবাসীর পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

 

ছাগলনাইয়া প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি আবুল হাসান তাদের দুইজনের নেতৃত্বের প্রশংসা জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে 
একটি স্ট্যাস্টাস দেন, সেটি পাঠকদের সুবিধার্থে হুবহু তুলে ধরা হলো:

‍‍দেখে যেন মনে হয় একই মায়ের যমজ দুই ভাই। একই মায়ের সন্তান না হলেও, তারা একই ছাত্র সংগঠনের শীর্ষ পদে অধিষ্ঠিত । ধর্ম- নীতি-রাজনীতিক ও সামাজিক সৌন্দর্য মানুষ ও সমাজকে পরতে পরতে আলোকিত ও বিকশিত করতে পারে , তার প্রমাণ রেখে চলেছেন ছাগলনাইয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জিয়াউল হক দিদার ভাইয়া। ও সাধারণ সম্পাদক শওকত হোসেন রুবেল ভাইয়া। সত্য-সুন্দর সব জায়গাতেই সুন্দর ও মোহনীয় । বিগত তিন দশকে আমার দেখায়, ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই পদে লোভ-লালসাহীন-নম্র-ভদ্র-ত্যাগী,নামাযী সবোর্পরি নৈতিক মানদন্ডে অনন্য সাধারণ দৃষ্ঠান্ত রেখেছেন এই দুই জন । সময়ের বিবর্তনে প্রবীণদের বিদায়, আর নবীণদের আগমনীবার্তা অর্নিবার্য হয়ে পড়ে। অতীত-বর্তমান আর ভবিষ্যতের দিকে চোখ রাখাও সময় ও সমাজ সচেতনতা । আওয়ামীলীগ সরকারের একচেটিয়া ক্ষমতার এই যুগে, এমন অসাধারণ নেতৃত্ব ছাগলনাইয়াবাসীর জন্য কতটা স্বস্তি আর প্রশান্তির ছিল , তা হয়ত আগামীর দিনগুলোই আমাদের জানান দিবে। এই স্বস্তি ও প্রশান্তির নেতৃত্ব সৃষ্ঠিকারী গীতিকার আর সুরকারদের জানাই সময়ের সাথে আগামীর পথে ধন্যবাদ ।