দেশের জনপ্রিয় পরিচালক, চিত্রনাট্যকার ও অভিনেতা কাজী হায়াৎ করোনায় আক্রান্ত। বাসায় বসেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু শরীর বেশি খারাপ হলে গত ১৬ মার্চ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর সেখানে তার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি ঘটে।

পরে চিকিৎসকদের পরামর্শে তাকে ২২ মার্চ নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেওয়া হয়।

তবে বর্তমানে কিছুটা উন্নতি ঘটেছে কাজী হায়াতের শারীরিক অবস্থার। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন তার পুত্র অভিনেতা কাজী মারুফ।

বাবার অসুস্থতার খবর পেয়ে সম্প্রতি আমেরিকা থেকে দেশে ফিরেছেন ‘ইতিহাস’খ্যাত এই নায়ক। বর্তমানে বাবার দেখাশোনা তিনিই করছেন।

বাবার শারীরিক অবস্থার আপডেট জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আব্বা আইসিউতেই আছেন। তবে উনার চিকিৎসা বেশ ভালোই চলছে। সাড়া দিচ্ছেন আব্বা। কথা বলেছেন আমার সঙ্গে। স্যুপও খেয়েছেন। আমি নিজ হাতে উনাকে খাইয়েছি। সবার কাছে দোয়া চাইছি আমি আব্বার জন্য।’

তিনি আরও বলেন, ‘আইসিইউতে থাকা অবস্থায় বাবার অক্সিজেন রিকয়ারমেন্ট কমছে। ২০ লিটার থেকে কমে ১০ লিটারে এসেছে। জিনিসটা ভালোর দিকে। আশা করছি এটা কন্টিনিউ হবে। চিকিৎসকদের দাবি, অক্সিজেন রিকয়ারমেন্ট কমা ভালো আর স্যাচুরেশন লেভেল বাড়া ভালো। আব্বার সেচুরেশন এখন আছে ৯৬ শতাংশ।’

এর আগে ২ মার্চ করোনা প্রতিরোধের টিকা নিয়েছিলেন কাজী হায়াৎ। ৬ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি।

টিবিএন/ আইএইচএস /সিআর/ জাগো