জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ও হেফাজতের  বিলুপ্ত কেন্দ্রীয় কমিটির সহকারী প্রচার সম্পাদক  মাঃ গাজী ইয়াকুব ওসমানী (৪৪) কে ফেনী থেকে গ্রেফতার করেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানা পুলিশ।

 

৬ মে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পরে জেলা পুলিশের একটি বিশেষ টিম তাকে গ্রেফতার করে।

 

গ্রেফতারকৃত মাওলানা গাজী ইয়াকুব ওসমানী গত ২৬ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত হেফাজতের কর্মসূচীতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডবের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

 

পাশাপাশি সরকার উৎখাতের সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব চালানোর সঙ্গে নিজের জড়িত থাকার কথাও পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন।

 

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে প্রযুক্তির সহায়তায় অদ্য ৬ মে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশের একটি বিশেষ টিম তাকে গ্রেফতার করে।

 

তিনি ঘটনার পর থেকে আত্মগোপনে ফেনী চলে গিয়েছিলেন। গ্রেফতারের পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তাণ্ডবের ঘটনায় জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

 

তিনি জানান, মাওলানা গাজী ইয়াকুবকে বিভিন্ন মামলায় গ্রেফতার দেখানো হতে পারে।
ফেনীতে আত্মগোপনে থাকা হেফাজত নেতা ইয়াকুব গ্রেফতার

ফেনীতে আত্মগোপনে থাকা হেফাজত নেতা ইয়াকুব গ্রেফতার

 

উল্লেখ্য যে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডবের ঘটনায় জেলার বিভিন্ন থানায় মোট ৫৬টি মামলা হয়েছে। এর মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় ৪৯টি, আশুগঞ্জ থানায় ৪টি, সরাইল থানায় ২টি এবং আখাউড়া রেলওয়ে থানায় ১টি।

 

এসব মামলায় ৪১৪ জনসহ অজ্ঞাতনামা ৩০ থেকে ৩৫ হাজার জনকে আসামি করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ৪৩৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।