কঠোর বিধিনিষেধে রোগীদের ভোগান্তি কমাতে বাগেরহাটে নেয়া হয়েছে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। ফোন করলেই রোগীর বাড়ি পৌঁছে যাবে চিকিৎসক।
‘এই নাম্বারে ফোন করি, ডাক্তার যাবে রোগীর বাড়ি’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ তন্ময়ের উদ্যোগে চালু হয়েছে বাড়ি গিয়ে চিকিৎসা সেবাদান কার্যক্রম।
বাগেরহাট সদর হাসপাতাল চত্বরে বুধবার(১৪ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টায় এ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক আ.ন.ম ফয়জুল হক।
এই স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমে চারটি টিম থাকবে। বাগেরহাট সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা টিমগুলো পরিচালনা করবেন। কোনো রোগী যদি হাসপাতালে আসতে না পারেন তাহলে ০১৭৩০-৩২৪৭৯৩ নাম্বারে ফোন করলে চিকিৎসক টিম চলে যাবে রোগীর বাড়িতে।
কোনো রোগীকে যদি হাসপাতালে এনে চিকিৎসা দেয়ার প্রয়োজন হয় তাহলে ওই গাড়িতে করেই তাকে নিয়ে আসা হবে।
সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দিন নিউজবাংলাকে বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের এই দ্বিতীয় ঢেউয়েও মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে ও সংক্রমণ প্রতিরোধে রোগীদের হাসপাতালে আসতে নিরুৎসাহিত করতে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।
‘এই কার্যক্রমের আওতায় আপাতত বাগেরহাট সদর ও কচুয়া উপজেলার মানুষ বাড়িতে বসে স্বাস্থ্যসেবা পাবেন। পর্যায়ক্রমে জেলার সকল উপজেলায় এই সেবা চালু করা হবে।’
সিভিল সার্জন বলেন, ‘সরকারঘোষিত কঠোর লকডাউনের ফলে যানচলাচল সীমিত করা হয়েছে। যার ফলে অনেক রোগী হাসপাতালে আসতে পারছেন না। এই পরিস্থিতিতে বাড়িতে বসে রোগীদের স্বাস্থ্যসেবা দেয়ার জন্য এই উদ্যোগ নেয়া। এর ফলে কেউ করোনাভাইরাস সংক্রমিত হলে তার মাধ্যমে আর কারো সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি কমে যাবে। বাগেরহাটবাসীর জন্য এটা বড় অর্জন।’