সোনাগাজী পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের হত দরিদ্র পিন্টু লাল বালামীর ছেলে শংকর বালামীর বেড় জাল পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

 

হতদরিদ্র শংকর বালামী বিভিন্ন এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে বেড় জাল কিনে দশজন দরিদ্র জেলের কর্মের সংস্থা করেন এবং নিজেও তাদের সাথে জাল টানেন।

 

নিজের একটি পুরোনো রিক্সাভ্যানে প্রতিদিনের মতো গতকাল জালটি সোনাগাজী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পশ্চিম উত্তর কোনে হাসপাতাল বাউন্ডারির বাইরে কমল দাসের বাড়ির সামনে রক্ষিত ছিলো।

 

রাতের যে কোনো সময়ে দুষ্ট প্রকৃতির দুর্বৃত্তরা শংকরের বেড় জালে আগুন দিয়ে সম্পুর্ন জাল রিক্সাভ্যান সহ পুড়ে দেয়।শংকর ও তার পরিবারের আহাজারিতে আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠছে।

 

তাদের বার বার জিজ্ঞাসা তারা কি করে চলবে কি করে তাদের কিস্তির ঋণ পরিশোধ করবেন।

 

শংকরের সাথে থাকা অন্যান্য দরিদ্র জেলেরা জানান শংকরের সাথে জাল ফেলে আমরা আমাদের পরিবার অতিবাহিত করি অশুভ চক্রের কুদৃষ্টি পড়ে আমরা অভাবী মানুষের অভাব আরো বেড়ে গেলো।অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে সমাজের সবলদের প্রতি সবিনয়ে অনুরোধ রইল।