নিজস্ব প্রতিনিধি <>

ফেনী জেলার ছাগলনাইয়ায় বিষ্ফোরক দ্রব্য আইন, বিশেষ ক্ষমতা আইন, নারী নির্যাতন আইনের মামলাসহ ০৪টি মামলা আসামী বিএনপি নেতা ও ৫নং মহামায়া ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ আবদুল কাইয়ুম (৪৩)কে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।
২৮ মার্চ দুপুর ২টায়  ছাগলনাইয়া উপজেলা পরিষদ’র সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। থানা সূত্রে জানা যায়, কাইয়ুম মেম্বারসহ কয়েকজন যুকক বেআইনী ভাবে সমবেত হয়ে গাড়ী ভাংচুর, সড়ক অবরোধ করার চেষ্টা ও দাঙ্গা-হাঙ্গামা করার লক্ষ্যে সংঘবদ্ধ হয়। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছলে সংঘবদ্ধরা এদিক সেদিক দৌড়ে ফালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও কাইয়ুম মেম্বার স্থানীয় একটি হোটেল ঢুকে পড়ে। পুলিশ ওই হোটেলে ঢুকে কাইয়ুম মেম্বারকে গ্রেফতার করে ।
কাইয়ুম মেম্বার উপজেলার ৫নং মহামায়া ইউনিয়নের মাটিয়াগোধা গ্রামের মৃত আবদুল জাব্বারের ছেলে।

এ ব্যাপারে ছাগলনাইয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ জানান, আবদুল কাইয়ুম’র বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে ৪টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে। ঘটনার দিন হেফাজতে ইসলামের হরতাল চলছিল। ছাগলনাইয়া উপজেলার কোন প্রকান মিছিল প্রিকেটিং বা কোন প্রকান জমাটবদ্ধ হতে আমরা লক্ষ করেনি। কিন্তু দুপুর ২টার দিকে কিছু যুবক উপজেলার পরিষদের সামনে সংঘবদ্ধ হয়ে যান চলাচলে বাঁধা, গাড়ী ভাংচুর করা এবং সড়ক অবরোধ করতে চেয়েছিল। জনগণের জানমাল নিরাপত্তা দিতে আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে  গেলে সবাই পালিয়ে যায়। ঘটনার সাথে সরাসরি জড়িত থাকায় আমরা আবদুল কাইয়ুমকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই। আমাসীকে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।